নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • জ্ঞানহীন মহামানব
    • এম ইউ রাকিব
    • মঞ্জুরে খোদা টরিক
    • হাইয়ুম সরকার
    • মুহাম্মদ ইমাম উদ্দিন
    • ল্যাপেনশিউর-দ্য...

    নতুন যাত্রী

    • উসাইন অং
    • মুস্তাফিজুর রাহমান
    • এম ইমরান
    • অরুণাভ দে
    • পাহাড়ের উপমানুষ
    • পুরানো ঘড়ি
    • স্বর্ণ সুমন
    • হেজিং
    • মং চিং প্রু
    • প্রলয় দস্তিদার

    কওমী মাদ্রাসা ও আধুনিক শিক্ষা প্রসঙ্গে ড. সলিমুল্লাহ খানের আলোচনার সমালোচনা-


    অধ্যাপক সলিমুল্লাহ খান আমার গুরু। স্কুলজীবন থেকে যার কথা-আলোচনা-লেখা-বিশ্লেষণ আমাকে মুগ্ধ করে রেখেছে! উনার অনেক কিছুই আমার অতি আগ্রহের বিষয়। বাংলা ভাষার পন্ডিতদের মধ্যে যাকে আমি অনন্য প্রতিভা মনে করি। সম্প্রতি কওমী মাদ্রাসার শিক্ষা ও আধুনিক শিক্ষা নিয়ে ‘আমাদের সময়ে’ ড. সলিমুল্লাহ খানের বক্তব্য পড়লাম। সেখানে তাঁর কিছু বক্তব্য আমার কাছে অস্পষ্ট ও বিভ্রান্তিকর মনে হয়েছে। তাঁর যে বক্তব্যগুলো আমার কাছে অধিক অসঙ্গতিপূর্ণ মনে হয়েছে সেগুলোকে শিরোনাম রেখে তার একটি সমালোচনা এখানে হাজির করেছি।

    পাহাড় নিয়ে মিথ্যাচার ও এর বিশ্লেষণঃ কল্পনা চাকমা, পাহাড়ের গণহত্যা ও সর্বশেষ রমেল চাকমা



    রমেল চাকমার হত্যার ঘটনায় সেনাবাহিনীর নাম রক্ষার জন্য একশ্রেণীর মানুষ বিভিন্ন মিথ্যাচারে লিপ্ত হয়েছে। বিভিন্ন ছবি প্রকাশ করে তারা বুঝাতে চাইছেন রমেল একজন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী। ট্রাক পোড়ানো মামলায় তার নাম আছে। এছাড়া কোন কোন পত্রিকায় (কালের কণ্ঠ) বলা হয়েছে সিএনজি অটোরিকশার ধাক্কায় রমেল আহত হয়ে মারা গেছে। এই ধরণের মিথ্যাচার নতুন নয়। কল্পনা চাকমার অপহরণের ঘটনাকে ধামাচাপা দেয়ার জন্যও অনেক মিথ্যাচার করা হয়েছে। গণহত্যাগুলোর বিবরণকে পাল্টে দেয়ার প্রচেষ্টা চলেছে। তবে সেসব সফল হয়নি। যদিও মিথ্যাচার এখনো চলছে।

    হেঁটমুন্ড উর্দ্ধপদ


    Subir Biswas নামক এক ভদ্রমহাশয় বিগত ২৩/০৪/২০১৭ ইং তারিখে, “সারাজীবনই হেঁটমুন্ড উর্দ্ধপদ” মাত্র ত্রি-শব্দের একটা ছোট্ট স্ট্যাটাস পোস্ট করিয়াছিলেন। কিন্তু তাঁহার এ ত্রি-শব্দের স্ট্যাটাসটি আমাকে বিগত তিন দিবস-রজনী সবিশেষ ভাবাইয়াছে। যদিও অভ্যাসবশত লাইক দিয়েছিলাম কিন্তু মর্মার্থ বিশেষে বোধগম্য হয় নাই। যদিও তিনি হেয়ার কন্ডিশনারের কথা বলিয়া দায় এড়াতে চাহিয়া স্ট্যাটাসটি এডিট করিয়াছেন।

    মডেল মসজিদ ও মুসলমান ।


    ••••• সারা দেশে ৪৯২ টি স্থানে নতুন করে ৫৬০ টি মডেল মসজিদ ও ইসলামি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন করা হবে । বাহ্ !! মডেল থানা, মডেল পৌরসভার পর বাকি ছিল কেবল মডেল মসজিদ । পরবর্তিতে আমরা দেখবো মডেল মাওলানা , মডেল শফি হুজুর, মডেল এরশাদ , মডেল শে খাসি না , মডেল শামিম উসমান এবং অতি অবশ্যই মডেল মুসলমান !!

    শুধু সুপ্রিম কোর্ট কেন, বাংলাদেশের সমস্ত সরকারি আধাসরকারি প্রতিষ্ঠানের অধীনে থাকা মসজিদ, মন্দির ও সংরক্ষিত নামাজের জায়গা বন্ধ করে দেয়া উচিত,


    ধর্মের মতো প্রধানমন্ত্রীর সমলোচনা করা ভয়ঙ্কর অপরাধ এবং ভীষণ বিপজ্জনকও। ধর্মের সমোলচনা করলে ধর্মান্ধরা কোপাতে আসে আর প্রধানমন্ত্রীর সমলোচনা করলে লীগান্ধরা আসে। আর ৫৭ ধারা তো রেডি আছেই। তারপরও যেহেতু কাগজে কলমে গণতন্ত্র আছে, তাই একটু সহস দেখালাম।

    (১)
    মঙ্গলবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে গ্রিক দেবীর ভাস্কর্য তাঁর পছন্দ হয়নি!

    আমরা বুশের পক্ষেও নই, ফরহাদ মজহারের পক্ষেও নই


    যুক্তরাষ্ট্র সারা দুনিয়াতে যে ‘ইসলামপন্থি’ ‘সন্ত্রাসী’দের সঙ্গে যুদ্ধ করার নামে দেশ দখল করছে তা হলো দেশটির ভেঙ্গে পড়া অর্থনীতিতে গতি আনার জন্য। পুঁজিবাদী অর্থনীতির গোলকধাঁধা হলো এটাই সে-অনিবার্য মন্দায় পড়বেই। সে মন্দা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য বিশ্বযুদ্ধও বেধেছে, আজকের যুগে বিশ্বযুদ্ধ সীমিত যুদ্ধে পরিণত হয়েছে। কারণ বিশ্বযুদ্ধে অনেক বেশি বিপদ। ফলে আজকের যুগে যারা ‘ইসলাম’ আক্রান্ত বলছেন, তারা মূলত বুশ ব্লেয়ারের ছানাপোনা, তারা মূলত ট্রাম্পের লোক, তারা মূলত পেন্টাগনের যুদ্ধ অর্থনীতির সাফাই গাওয়ার পক্ষে প্রোপাগান্ডা মেশিন মাত্র। বাংলাদেশে ‘ইসলামপন্থি’ রাজনীতি যারা করতেন, তারা এলিট বুদ্ধিবৃত্তিক জগতে

    ওরা তো লিভ-ইন করে!


    ওরা তো লিভ-ইন করে!
    কি! একথা শুনেই ঠোট টিপে হাসি আর চোখ ঘুরিয়ে ফিসফিস করে কটূ কথা বলা হয়ে গেল তো?
    ভাই, থামেন। বিয়ে করে বউয়ের সাথে পঞ্চাশ বছর সংসার করার থেকে বিয়ে না করে কোন স্বাথর্ সিদ্ধির চিন্তা ছাড়া একবছর একই ছাদের তলে কারো সাথে বসবাস করা হাজার গুণ কঠিন কাজ।
    বিয়ে করা মানেই হাজার লোককে ডেকে, কব্জি ডুবিয়ে খাইয়ে, রেশমী কাপড়ে আর অলংকারে মুড়ে জুবুথুবু বউকে নিজের সম্পত্তি বানিয়ে ফেলা।

    তোমার প্রিয় প্রতিমা হবো


    তোমার কাছে ঠিকই যাবো একদিন
    কিলবিল করা কীটেভরা আমাদের ও
    তোমাদের ব্যাধিগ্রস্থ সমাজকে পদানত করেই।
    মিথ্যে পৌরুষিক দম্ভকে প্রেমাঘাতে
    করে দিবো চূর্ণ একদিন;
    যে প্রেমে ক্ষুধা নেই, আছে আঘাত--
    সেদিন এ পাথর ভাস্কর্যে ছেনি মেরে মেরে
    খোদায় করো তোমার ঘৃণা, যা
    জমিয়ে রেখেছো বহুদিন ধরে-- শান
    দিয়ে দিয়ে...........................
    দেখবে,তুমি অলক্ষ্যেই গড়ে তুলেছো
    নিজেরে যেন সুনিপুণ সৌন্দর্যপ্রিয় ভাস্কর!

    প্রিয়তমা, তোমার আঘাতই হেন এ পাথরে-
    নইলে কোনোদিন হবো না যে
    প্রিয় প্রতিমা তোমার...............

    ছিঃ তোরা সাপ খাস, তোরা ব্যাঙ খাস!


    খড়ের ছাউনিটা একদম নড়বড়ে হয়ে গেছে। হালকা বৃষ্টিতেই ফুটো দিয়ে জল পড়ে। খিংমে মারমার বয়স ষাট পেরুতে চলল। সম্বল বলতে এই ছোট ঘরটাই আছে এখন। জুমক্ষেতগুলো অনেক আগেই জ্বালিয়ে দিয়েছে তারা, একমাত্র মেয়েকে বিশবছর আগে মেরে ফেলেছে তারা...

    স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীই যেখানে ক্ষতিগ্রস্থ হাওর বাসীর ক্ষতির হিসাব নিয়ে ক্ষুব্ধ


    আকস্মিক অতি বৃষ্টি, পাহাড়ী ঢল আর নদীর পানির অস্বাভাবিক বৃদ্ধির কারণে এবং পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) এর সীমাহীন দুর্নীতির ফলে নির্মিত বাঁধ ভেঙ্গে যাবার ফলে বাংলাদেশের বৃহৎ হাওর অঞ্চল সুনামগঞ্জের মেহনতি কৃষকের একমাত্র ফসল বোরো ধান ঘরে তোলার আগেই তলিয়ে যায়।

    গত রবিবার সচিবালয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব মাকসুদুল হাসান খান বলেন, ‘হাওরে বন্যায় মোট এক হাজার ২৭৬ মেট্রিক টন মাছ নষ্ট হয়েছে এবং তিন হাজার ৮৪৪টি হাঁস মারা গেছে।

    একই সংবাদ সম্মেলনে কৃষি সচিব মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ্ বলেন, ‘বন্যায় দুই লাখ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে।’

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর