প্রাণে প্রাণ মেলাবই.....
ব্লগপ্ল্যাটফরম

karigor.com

karigor.com

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষন

ইস্টিশনের যন্ত্রপাতি

ভোটকেন্দ্র

আপনি কি মনে করেন সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বিচার বিভাগের স্বাধীনতাকে ক্ষুন্ন করবে?:


ভারতে কয়লা বিদ্যুৎ বিপ্লব, বাংলাদেশে ধ্বংস হবে সুন্দরবন, পর্ব-১


[ভারতের ছত্তিশগড় ও মহারাষ্ট্র থেকে ফিরে]
বাংলাদেশের গণমাধ্যমে বাগেরহাটের রামপালের ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের বিরোধীতা হয়েছে ব্যাপক আকারে। যদিও একটি অন্যতম প্রভাবশালী পত্রিকা এ ব্যাপারে ছিলো নিশ্চুপ। এ কারণে ভারত ও বাংলাদেশের সরকার দেশের জ্বালানি রিপোর্টারদের ভারতের সুপারক্রিটিক্যাল কেন্দ্র ঘুরিয়ে আনার চিন্তা শুরু করে। এ চিন্তা বাস্তবে রুপ নিতে গিয়ে ৩৩ জন রিপোর্টারকে ভারতে নিয়ে যাওয়া হয়। ওই সফরদলে আমিও ছিলাম। যা দেখেছি, যা আমাদের বলেছে এবং ভারতের গণমাধ্যম যা বলেছে তার ওপর ভিত্তি করে দুই পর্বের একটি সিরিজ লিখবো ইস্টিশনে। এটি তার প্রথম পর্ব।




ব্লগারদের নিয়ে একটি একাডেমিক গবেষণায় অংশ নিতে এগিয়ে আসুন


আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র। মাস্টার্সের থিসিস হিসেবে বাংলা ব্লগিং নিয়ে গবেষণা করছি যার টাইটেল হলো Social Media and the Culture of Online Public Opinion: A Study on the Bloggers of Bangla Blogosphere । এই গবেষণার অংশ হিসেবে বাংলা ব্লগসাইটসমহূদের ব্লগারদের জরিপে অংশগ্রহণের আহবান জানাচ্ছি। যেহেতু এটি একটি একাডেমিক গবেষণা তাই কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে শুরু করাটা অবশ্য কর্তব্য। আমি ইতিমধ্যে ইস্টিশন কর্তৃপক্ষকে নিজের পরিচয় নিশ্চিত করে অনুমতি নিয়ে নিয়েছি। ইষ্টিশন ব্লগের ব্লগারদের এখানে অংশ নেবার আমন্ত্রন রইলো। এছাড়া আপনি যদি অন্য বাংলা ব্লগ সাইটের ব্লগার হয়ে থাকেন




অভিজিৎ রায়ের সমালোচনা করেছি বাংলাদেশের স্বার্থে


ক্যাচালসহ নানাবিধ ঝুঁকি নিয়ে অভিজিৎ রায়ের লেখার সমালোচনা করার যে একটা উদ্দেশ্য ছিল তা আগের লেখায় উল্লেখ করেছি। তবে সেই উদ্দেশ্যটা লেখার সুযোগ পাই নাই, উনি আমার যে ‘উদ্দেশ্যে’র কথা বলেছেন তা খন্ডন করতেই সময় চলে গেছে। পরে লিখবো বলেছিলাম। এখন লিখছি।




এরপরেও ওনাকে মন্ত্রী হিসেবে বহাল রাখা হবে ?


ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের অন্যতম স্তম্ভ হজ্জ্বের মওসুম চলছে । পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মত বাংলাদেশ থেকেও লাখের কাছাকাছি ধর্মপ্রাণ মুসলমান নর-নারী আল্লাহর আদেশ পরিপূর্ণ করতে হজ্জ্ব পালনের উদ্দেশ্যে মক্কায় অবস্থান করছে । প্রতিটি মুসলিম নর-নারীর জীবনের অতি আকাঙ্খিত স্বপ্নের মধ্যে বৃহত্তম স্বপ্ন হল বায়তুল্লাহ তাওয়াফ করা এবং মানবতার মুক্তির দিশারী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর রওজা মোবারকে সালাম পেশ করা । যারা ইসলাম ধর্মে বিশ্বাস করে তারা বিনা বাক্য ব্যয়ে মান্য করে হজ্জ্বের গুরুত্ব ও ফযিলত । অন্যদিকে বিশ্বের সকল স্বাধীন রাষ্ট্রসমূহের সর্ব বৃহৎ সংস্থা জাতিসংঘের ৬৯তম অধিবেশন চলছে । সে উপলক্ষে বাংলাদেশের প্রধানম




হারাধনের দশটি পোলা......


হারাধনের ১০ টি পোলার একটি আজকে "নাই"।
বাকি নয়টির বুকে কাঁপন কখন জানি "যাই"।

এই রে, যায় বুঝি.........।

হারাধনের ৯ টি পোলার কয়টা বাড়াবাড়ি,
তাদের জন্য একটা কিছু করেন তাড়াতাড়ি।

ওয়েট পিলিগ লাগে.........।

হারাধনের ৮টি পোলার একটির বিদ্যা’য়,
হম্বি তম্বি ভাষণ শাসন দেশে থাকা দায়।

ব্যাটা বিদ্যার জাহাজ......।

হারাধনের ৭টি পোলার একটি বীরউত্তম,
কথায় তার ফুলঝুরি আর কাজে নাইকো দম।

ওরে থুইয়া কাম কি......?

হারাধনের ছয়টি পোলার একটায় গায় গান,
দাড়িয়ে ঘুমায় কমিক করেন স্টেজে বিড়ী খান!

উনি মজার মানুষ...... ।

এইভাবে ঠিক এক একটা বিদেয় যদি হয়,




বাউল সম্রাটের গান শোনার পর


হাওরের শহর সুনামগঞ্জে কালনীর তীরে বেড়ে উঠা একজন সঙ্গীত সাধক, নাম শাহ আব্দুল করিম। দীর্ঘকায় সাদাসিধে একজন মানুষ। বাংলাদেশ, বাঙালি ও বাউল গান ঘিরেই তার স্বপ্নগুলো। একতারা, দোতরা সারিন্দা নিয়ে তার স্বপ্নের কথা বলেছেন সুরে সুরে। সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার ধলআশ্রম গ্রামে ১৯১৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন এই মহান সঙ্গীত সাধক। চলে যান ১২ সেপ্টেম্বর ২০০৯ সালে।




শারদীয় শুভেচ্ছা


এবার পূজায় আর কিছু না
চাই গো শুধু মা....
আমার পাণে মায়ার টানে
নেত্র মেলে চা

আমার গায়ের রংটা দেখে
সব মেয়ে দেয় দৌড়ই
তোর গা হতে রং কিছু ঋন
দিস ওগো মা গৌরী

পাওনাদারের ভয়ে ঘরের
বাইরে জেতে পারিনি
ওদের কেন নিস না তুলে
তুই না বিপত্তারিণী??

এই ইদানিং আমারও তো
হচ্ছে বোধন অকালে
ঘুম ভাঙে রোজ দুপুর বেলা
ঘুম ভাঙেনা সকালে

ক্লাসে গেলে স্যারে ধমকায়
বাসায় এলে বাপে
আমি নাকি পাহাড়সম
অলসতার মাপে

কিন্তু আমি সাধ্য থেকে
খাটনি বেশী করি
দুইটি হাতে পাউরুটি চা
সঙ্গে বই পড়ি

দশভুজা মা আমাকে তুই
আর দুটো হাত দিস
আর কতদিন শুনবো গালি
অলস লেবেনডিশ???

এবার পূজায় একটু এদিক


 

দুই দেশের দুটি খবরে--- দুই রকম অনুভূতি


দুই দেশের দুটি খবরে--- দুই রকম অনুভূতি

আমাদের দেশে আইন আসলেই ধনী এবং ক্ষমতাধরদের পকেটে এবং তা আরও কুক্ষিগত করার পাঁয়তারায় এই কয়েকদিন আগে অবৈধ সংসদদের দ্বারা সংসদে পাশ হল ১৬ষ সংশোধন ( ৭ই সেপ্টেম্বর ২০১৪ বিল উত্থাপনের ১০ দিন পর ১৭ই সেপ্টেম্বর পাশ হয়েছে) । ১৬ষ সংশোধন জনমনে যেমন প্রশ্ন উঠেছে তেমনি আইনের শাসন যে বড়লোক ও ক্ষমতাধরদের পকেটে তার আর এক বার প্রমাণ হয়ে যাচ্ছে।




ভর্তি পরীক্ষা নামক ঘোড় দৌড়ের জুয়া আর কত খেলা হবে?


সম্ভবত গত কিছু দিন হল দেশের বিশ্ববিদ্যালয় গুলো ভর্তি পরীক্ষার রেজাল্ট দিয়েছে। গত রাতে একটা ছোট ভাই ফেসবুকে নক করলো। "ভাইয়া, ঢাকার ভেতরে কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স হয়নি। ভারতে পড়তে এতে চাই। প্রসেসটা বলেন।" তার কথা শুনেই বুঝলাম সে কিছুটা মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত। এই ছেলেটা SSC+HSC দুটোতেই সোনা পেয়েছে। আমার রাষ্ট্র তার মার্ক সিটে লিখে দিয়েছে তুমি GOLDEN A+ (GPA 5) পাইলা। তুমি দেশের সোনার ছেলে। এমন সোনার ছেলের সংখ্যা দেশে এবার সম্ভাবত এক লাখ।

বিভাগঃ



হঠাৎ পরিচয়


অর্ণব এর সাথে হিয়ার পরিচয়টা একধরণের
একসিডেন্টলি ঘটে যাওয়া। একবার
ফেসবুকে সিক্রেট ক্রাশ এ্যাপটিতে
ক্লিক করায় অ্যাপটি দেখিয়েছিল,হিয়ার
সিক্রেট ক্রাশ হচ্ছে অর্ণব।
এটা দেখে হিয়া রেগে যায় এবং অর্ণব এর
সাথে মেসেজে খারাপ ব্যবহার করে।অর্ণব
স্টেটাসটি ডিলেট করে দেয়।এর মাঝে অর্ণব
একবার হিয়ার প্রোফাইল ঘুরে আসে। কিন্তু
কিছু জানতে পারে না কারন সব তথ্যেই
প্রাইভেসি দেওয়া।
কিছুদিন পর হিয়ার থেকে একটা মেসেজ
আসে,"I am sorry".আর্ণব লিখে,"No,it's my fault".তখন
হিয়ার মেসেজ আসে, "আসলে আমি দুঃখিত,
ঐদিন আমি আপনার সাথে খারাপ ব্যবহার
করে ফেলেছি।আসলে ঐদিনের আগের দিন
আমার বন্ধুর সাথে ঝগড়া হয়েছিল তাই মন-

বিভাগঃ



বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে


আমরা সবাই স্বাধীন দেশের স্বাধীন নাগরিক। আমাদের দেশ আজ উন্নতির পথে ধাবিত হচ্ছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা, দেশরত্ন ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। বাংলাদেশের মানুষ সেই ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল অনেকাংশে ভোগ করছে।

এই সরকারের উন্নতির জোয়ারে ভাসছে সারাদেশ। বাংলাদেশের উন্নয়ন ও বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং তার সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করেন জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন। এ অর্জন তার একার নয়, এ অর্জন বাংলাদেশ তথা বাংলাদেশের আপামর জনতার।




'নাস্তিক বললে তার বিরুদ্ধে মামলা করব' - শাহরিয়ার কবির


শাহরিয়ার কবিরের আত্মজীবনীমূলক সাক্ষাৎকারের শেষ পর্ব ‘সাপ্তাহিক’-এর এবারের ঈদুল আযহা সংখ্যায় ছাপা হয়েছে। সেটি পড়তে গিয়ে অবাক হলাম। দেশের সবচেয়ে বড় মৌলবাদ, সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী মানুষটি বলছেন, ‘কেউ যদি আমাকে নাস্তিক বলে আমি অবশ্যই তার বিরুদ্ধে মামলা করব।’ লেখাটি পড়তে গিয়ে অবাক হয়েছি। আর এর সঙ্গে তুলনা করেছি আমাদের বর্তমান নাস্তিকদের সঙ্গে। এরা যে স্ট্যান্ডবাজি, নিজেদের কুতুবিয়ানা প্রচারটাকেই বড় করে দেখেন, তা একেবারে স্পষ্ট। বাস্তবে, বাংলাদেশের মতো একটি মুসলিম রাষ্ট্রে যদি সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী আন্দোলনকে এগিয়ে নিতে হয়, তাহলে হতে হবে ভীষণ কৌশলী এবং দায়িত্বশীল। শাহরিয়ার কবিরের মধ্যে সেটা দেখা যাচ্ছে।

বিভাগঃ



ইসলামী জঙ্গিপনা এবং নিজস্ব মতামত


অভিজিৎ রায় এবং পারভেজ আলম,এই দুইজনের প্রায় সব লেখাই পড়েছি এবং পড়ি,পারত পক্ষে কখনোই মিস করিনা।
অভিজিৎ দা যখন জঙ্গি উন্মাদনাকে 'বিশ্বাসের ভাইরাস' হিসেবে দেখে ধর্মকেই এর জন্য দোষি সাব্যস্ত করেন তখন মেনে নিতে পারি না। আবার পারভেজ আলম যখন জঙ্গিদের 'সালাফি ইসলাম' হিসেবে চিহ্নিত করতে চায় তখনও মেনে নিতে পারিনা। সেই ভিত্তিতে আমার নিজস্ব একটা মত আছে। আর প্রকাশ না করতে পারলে মতামতের দুর্বলতাও তো ধরা পড়বে না।




চলচ্চিত্রকার আলমগীর কবির । সংক্ষিপ্ত পরিচিতি।


আলমগীর কবির আমাদের দেশের সেরা চলচ্চিত্র পরিচালকদের মধ্যে অন্যতম,আমার দৃষ্টিতে জহির রায়হানের পরেই তিনি। তার তিনটি সিনেমা ব্রিটিশ ফিল্ম ইন্সটিটিউটের করা "বাংলাদেশের সেরা ১০ চলচ্চিত্র" এর তালিকায় স্থান পেয়েছে।


হাতড়ান

ফেসবুকে ইস্টিশন

প্রজন্মের বায়োস্কোপ

বাংলা চলচ্চিত্র- বৃহন্নলা

  • বড় করে দেখুন
  • কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৩ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর