নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • নুর নবী দুলাল
    • রাজর্ষি ব্যনার্জী
    • আসিফ মহিউদ্দীন
    • কান্ডারী হুশিয়ার
    • সাইয়িদ রফিকুল হক

    নতুন যাত্রী

    • মিঠুন সিকদার শুভম
    • এম এম এইচ ভূঁইয়া
    • খাঁচা বন্দি পাখি
    • প্রসেনজিৎ কোনার
    • পৃথিবীর নাগরিক
    • এস এম এইচ রহমান
    • শুভম সরকার
    • আব্রাহাম তামিম
    • মোঃ মনজুরুল ইসলাম
    • এলিজা আকবর

    কুরআন অনলি: (৮) কুরআানে অবিশ্বাস ও তার কারণ!


    স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) তার আল্লাহর রেফারেন্সে সুদীর্ঘ ২৩ বছর ব্যাপী (৬১০সাল- ৬৩২ সাল) যে বানীগুলো প্রচার করেছিলেন তার এক বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো, একই বাক্য বা বিষয় ঘুরিয়ে ফিরিয়ে বার বার উপস্থাপন করা। তিনি তার জবানবন্দি ‘কুরআনে’ ঘোষণা দিয়েছেন যে, অবিশ্বাসীরা তার দাবীকে নাকচ করতেন এই অভিযোগে যে তিনি যা প্রচার করছেন তা তাদের কাছে ‘পূর্ববর্তীদের কিচ্ছা-কাহিনী ও উপকথা বৈ আর কিছু নয়।’

    মুহাম্মদের ভাষায়: [1] [2]

    কেন আপনি একজন খ্রিস্টান,হিন্দু, বৌদ্ধ বা মুসলিম?


    মুসলিমরা অন্যান্য ধর্মাবলী থেকে অনেক অনেক বেশি আক্রমণাত্মক হয় যখন তাদের বিশ্বাস কে সমালোচনা করা হয়।আবার এখন দেখা যাচ্ছে হিন্দু, খ্রিস্টান, বৌদ্ধ এবং যারা ঈশ্বর ও ধর্ম বিশ্বাস করে তারা সবাই একই উগ্রতা প্রকাশ করে। তারা ও প্রচণ্ড ঘৃণা করে যখন তাদের বিশ্বাসগুলিকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়।

    কিন্তু যখন কেউ আপনার বিশ্বাসকে প্রশ্ন করে তখন কেন রাগ করেন? কেন আপনারা গঠনমূলক সমালোচনার এবং বিশ্বাসযোগ্য আর্গুমেন্টের উত্তর দেন না? যে ব্যক্তি আপনার বিশ্বাস প্রশ্নবিদ্ধ করে। প্রমাণ করেন যে এই ব্যক্তি ভুল।কিন্তু এর পরিবর্তে এই ব্যক্তিকে কেন শূকর, কুকুর, নাস্তিক, কাফির বলে আক্রমণ করেন?

    ধর্ষণ; কে দায়ী? সমাধান কার হাতে?


    সব পশুর(নারী) প্রজননকালীন সপ্তাহ/মাস থাকলেও পুরুষের নেই, পুরুষ সবসময় প্রি-কয়টাল; তাই নারীই ধর্ষিত,পুরুষ ধর্ষক। সমাধানের দায় অবশ্যই পুরুষের হাতে।

    পুলিশ বাহিনীর টিম লিডারদের উদ্দেশ্যে বলছি


    আপনারা দেশের স্বার্থে পেশাদারিত্বের স্বার্থে পুলিশ ডিপার্টমেন্টের স্বার্থে অধীনস্থ কর্মীদের স্বার্থে দয়াকরে একটু মানসিক উৎকর্ষতা অর্জন করুন।

    দুই কাধে দুই কুলাঙ্গার


    ১. মানুষের দুই কাধে যে দুজন ফেরেস্তা চেপে আছে একথা প্রথম জানতে পারি সম্ভবত ৮ বছর বয়সে। এই গুপ্ত খবরটা দিয়েছিলেন আমার প্রিয়তমা গ্রান্ডমাদার। একথা শুনেই আমি বিশ্বাস করে নিয়েছিলাম, তখন থেকে কাধদুটো একটু করে বেশি ভারি ভারি লাগতো। তার বসার সময় তাদের ওজন কতো ছিলো জানিনা, আমার ওজন দিনে দিনে বেড়েছে, তাদের ওজনের কি অবস্থা কে জানে?

    মেডিকেল সায়েন্স পড়া মানুষ কিভাবে কোরানকে ঐশি কিতাব বলে বিশ্বাস করে ?


    বাংলাদেশে যে ডাক্তার সম্প্রদায় আছে , মেডিকেল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রী নিয়ে নামকরা ডাক্তার হয়েছে , তারা কিভাবে কোরানকে ঐশি কিতাব হিসাবে বিশ্বাস করে , তা এক বিস্ময়কর ব্যপার। যারা মেডিকেল কলেজে পড়ে , যখন এনাটমি পড়ে , তখন সহজেই তাদের বোঝার কথা যে জীব জগত আসলে বিবর্তনের ফলে আজকের পর্যায়ে এসেছে। যুক্তির খাতিরে ধরা যাক , বিবর্তনবাদ মিথ্যা , তাহলেও কি কোরান জীব বিজ্ঞান সম্পর্কে সঠিক তথ্য দেয় ? এবার দেখা যাক , কোরান জীব বিজ্ঞান সম্পর্কে আসলে কি বলে।

    পৃথিবী আমায় চায় না


    আমি একজন হিজড়া। কি আঁতকে উঠলেন? কিন্তু মানুষ তো? রক্তে -মাংসে- মজ্জায়- মগজে প্রাণ তো?
    আমি আজ লানত দিচ্ছি ইসলামের মুহাম্মদকে (স.)। কেন ? সে কথায় পরে আসছি। তবে এ কথা ঢের জেনেছি, পৃথিবী কেন আমায় চায় না?!

    সৃষ্টিকর্তা ও তাঁর মনোনিত পুরুষদের কাছে আজও আমি অভিশাপ! আমাকে অভিসম্পাত্ করেছে প্রতি মুহূর্তে আসমানী কিতাবধারী
    আল্লাহ্! ভগবান! ঈশ্বর ! সদাপ্রভু! এবং পরিবার! সমাজ! রাষ্ট্র!
    কিন্তু আমি চিৎকার করে বলতে চাই, আমি আমার জন্মের জন্যে দায়ী নই? তাহালে দায়ী কে? দায়ী আমার বিবর্তনীয় প্রকৃতি? 

    কুঞ্জবিথী (ভ্রমণ,ইন্টেরিয়র ডিজাইন ও কারুকাজ পর্যবেক্ষণ) -১



    একটা মানুষ কতটা রুচিশীল কতটা শৌখিন তা আঁচ করা যায় তার পছন্দ চাল চলন থেকে। আর সেটা আঁচ করার একটা বড়মাধ্যম হল তার গৃহস্থালির ব্যবস্থাপনা । আপনার ইন্টেরিয়র সাজানো যত সুন্দর হবে আপনার ব্যাক্তিত্ব তত মজবুতভাবে প্রকাশ পাবে।
    আজকে কিছুটা ইন্টেরিয়র ডিজাইন ও ভ্রমন বিষয় নিয়ে লিখব , কিন্ত তাতে একেবারেই আমি নবিশ।ভুল ত্রুটি ক্ষমাসুন্দর চোখে দেখার আহবান রইল ।

    প্রতিটি ধর্মে স্বর্গের পাশাপাশি নরকের অস্তিত্তই প্রমাণ করে স্বয়ং সৃষ্টিকর্তাও তাঁর হুকুমমতের উল্টো মতাদর্শের মানুষ থাকার বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছেন।


    একই মাতৃ জঠরে জন্ম নেয়া দুই সহোদর ভাইয়ের মধ্যেও মতাদর্শগত পার্থক্য থাকতে পারে। একই মাতৃস্তন্যে লালিত, একই পিতার ঔরষে জন্ম, সেই একই জল-হাওয়ায় আশৈশব বেড়ে উঠা। একই পারিবারিক অনুশাষনে যাপিত জীবন, অথচ চিন্তায়-চেতনায়, আদর্শে, মতাদর্শে বহু যোজন দুরত্ব। একজন প্রথাগত সংস্কারাবদ্ধ, ধর্মীয় অনুশাষনে অত্যন্ত কনজার্বেটিভ অন্যজজন যুক্তি শাস্ত্রের ধারক। সংস্কার, ধর্ম, সামাজিক রীতিনীতি সর্বক্ষেত্রে যুক্তির প্রাধান্যে বিশ্বাসী। এর থেকে এটাই প্রতীয়মান যে, প্রতিটি মানুষই সাতন্ত্র সংস্কার দ্বারা গঠিত।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর