নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • মিশু মিলন
  • মোঃ রাব্বি সাহি...
  • পৃথু স্যন্যাল
  • মোমিনুর রহমান মিন্টু
  • দীপ্ত সুন্দ অসুর
  • দ্বিতীয়নাম

নতুন যাত্রী

  • আরিফ হাসান
  • সত্যন্মোচক
  • আহসান হাবীব তছলিম
  • মাহমুদুল হাসান সৌরভ
  • অনিরুদ্ধ আলম
  • মন্জুরুল
  • ইমরানkhan
  • মোঃ মনিরুজ্জামান
  • আশরাফ আল মিনার
  • সাইয়েদ৯৫১

আপনি এখানে

কবিতা

ক্যান্সার


যেসব চুমুগুলো আমাদের খাবার কথা ছিল
সেসব পচে গিয়ে দখল করে নিয়েছে নাগরিক ডাস্টবিন
এবং
সেসব ডাস্টবিনেও পচন ধরেছে!
বস্তুত
কুকুররাও সেসব ছুঁয়ে দেখে না; ক্যান্সারের ভয়ে।

কুকুরদেরও কি ক্যান্সার হয় তোমার হৃদয়ের মত?

স্বপ্নদ্রষ্টারা


স্বপ্নদ্রষ্টা

লাশের শহর


লাশের শহর
-রিজওয়ান অনুভব

নিরালোক নিঝুম


তোমারি নাম করেছি জপ জনম জনম ধরে,
তোমারি হৃদমাঝারে দেহমন অামার সদা বসত করে।

সেই সন্ধ্যের চাঁদোয়ামাখা মুখে, দিয়েছিনু চুমু কি অপূর্ব নিবিড় এক সুখে;
কি জানি কি অাবেশে, জড়িয়ে ধরেছিনু গভীর মনোনিবেশে।

কপালে গন্ডে বক্ষে....যেখানে গেলে নাকি হয়না অার রক্ষে,
সুধার মাঝে নিভেছিল সব ক্ষুধা, ধরণী যেন গিয়েছিল মোর পক্ষে।

এখনো ডাকে গাছে পাখি,
লালে ভরিছে পলাশ-শিমুল শাখী।
প্রহর গুনিছে চাতক, প্রেমের লাগি,
রয়েছি অাজো তোমারি তরে নিশিথ রাতি জাগি।

দেবী


মেয়েটির বস্তুত কোন সমস্যা ছিল না।
আর পাঁচটা বাঙালি মেয়ের মতই লাল শাড়ীতে তাকে বেশ মানাত।
সিঁথি করত ডানদিকে বেশিরভাগ সময়।
নির্লিপ্ত ঠোঁটে যেন মধু লেগে থাকত
উপরে-নীচে দিবায়-প্রত্যুষে প্রত্যহ।

মেয়েটির আহামরি কোন সমস্যা ছিল না।
তার কণ্ঠ সংবাদ উপস্থাপিকার মত বলিষ্ঠ না হলেও
আমার হৃদয় কাঁপিয়ে দেয়ার জন্য যথেষ্ট ছিল।
তার গালে ছিল সাদা মেঘের প্রলেপ আর হাতে ছিল
ঘন মাখনের মতন পিচ্ছিল আস্তরণ।
বিভিন্ন উৎসবে প্রয়োজনে-অপ্রয়োজনে ছাল-ছুতোয়
হাত ধরলেই কেমন নরম নরম লাগত!

ব্যর্থ আমি


আমি সম্ভবত আর কোনদিনও সফল হতে পারব না।
ব্যর্থতায় ভরে উঠেছে আমার সমস্ত দেহ।
ছড়িয়ে পড়া শুরু করেছে তারা গ্রহ থেকে গ্রহান্তরে
আলোর সাথে মিশে গ্যালাক্সি থেকে গ্যালাক্সিতে।
ছড়িয়ে পড়ছে গুচ্ছে গুচ্ছে
মহাজাগতিক শূন্য স্পেস তারা ভরে দিচ্ছে পরম আবেগে।

আমি সম্ভবত আর কোনদিনও সফল হতে পারব না।
রাস্তায় হাঁটতে গেলে ছুটন্ত বাস আমার দিকে ধেয়ে আসে
আর ফুটপাতে ধেয়ে আসে নগরীর সমস্ত সফল মানুষ।
এক এক করে তারা আমার পাশ কাটে।
সভ্য ছুরির বদলে বুকে ঢুকিয়ে দেয় অসভ্য রক্তাক্ত সফলতার হাসি।

ভালবাসার গান


হোসে মার্‌তির সেই বিখ্যাত ভালবাসার কবিতাটি থেকে কয়েক পংক্তি ভাবানুবাদের ব্যর্থ প্রয়াস আমার...

আমি এক সহজ মানুষ, সরল আমার মন
দেশে আমার রয়েছেগো পাম গাছের বন ।
মনের কথা এক আমি বলে যেতে চাই
আমি মরে যাবার আগে, ওগো ও ভাই ।

আমার নবজন্ম সাধ


আমার নবজন্ম সাধ, তোমার দুটো নখর আঙুল ঘষে
প্রাচীনকালের শাশ্বত গুহামানবের বেশে
তুমি আমার বুকে আগুন জ্বালাবে।
কিন্তু তুমি আগুনের চাষাবাদ করলে তোমার প্রেমিকের অনুর্বর বুকে।
মরুভূমিতেও সবুজ ঝোপঝাড় জন্মায়। জানি। আরও জানি,
উট কাঁটা খেতে ভালোবাসে।

তোমার চুলের প্যাঁচ প্রতি দুই ওয়াক্তে আমার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করে।
মৃত্যুর আগে অর্ধপূর্ণ ফুসফুস নিয়ে আমার পূর্ণ শ্বাসকষ্ট হয়।
তোমার প্রেমিক অ্যাশট্রে পোড়ায় বেনসনের ধ্বংসাবশেষে।
একটা দামী ইনহেলার তুমি তার কাছ থেকেও নিতে পারতে।

প্রেমিক


বহুদূর বহুপথ হেটেছি একাকীত্বে
অন্ধকার চোরা গলির পিচ্ছিল পথে,
কংকরময়, উত্তপ্ত বালির ভাগাড় ভেদ করে।
আরব সাগর থেকে ভারত মহাসাগর,
হাওয়াই থেকে সিংহল দ্বীপ।
খোজেছি আমার প্রানের মানুষকে।
আস্তমিত সূর্যের আভায় খোজেছি
প্রিয় তোমার মুখ।

আমি প্রেমিক নই, আমি কামুক।
ভালবাসা খোজেছি পাতলা দুই ঠোটে,
সুগভীর নাভী, স্ফীত যোনীর অতলে।
উত্থিত শিশ্নের কামুক চাহিদায়।

মানবতা কোথায় তুমি ?


কোন এক শতাব্দি শেষে,
নিশ্চয় মুক্তি পাবে,মানবতা
আর হয়ত শুনবো বিপ্লবী আমি,
ক্রমশ জয়োল্লাসে বলছে কেউ,
মানবতার জয় হয়েছে,কোথায় তুমি?

পৃষ্ঠাসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর