নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • গোলাপ মাহমুদ
  • শ্মশান বাসী
  • সলিম সাহা
  • মৃত কালপুরুষ
  • মাহের ইসলাম

নতুন যাত্রী

  • নীল মুহাম্মদ জা...
  • ইতাম পরদেশী
  • মুহম্মদ ইকরামুল হক
  • রাজন আলী
  • প্রশান্ত ভৌমিক
  • শঙ্খচূড় ইমাম
  • ডার্ক টু লাইট
  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • হিমু মিয়া
  • এস এম শাওন

আপনি এখানে

অালহাজ্ব মোকলেছ


অালহাজ্ব মোকলেছ
চুরি করে নেকলেস,
হয়েছে অাজ জনদরদী।
নেতা-পিছে নিশপিশ
রাত্রিতে ফিসফিস,
রোজ খায় প্রাতরাশে ঘি।

চাঁদাবাজি পিকেটিং
করে পিক পকেটিং,
হররোজ মসজিদে যায়।
বয়সেতে প্রবীণ অাজ
মোকলেছে নেই লাজ,
লোকে বলে সবই সে খায়।

ধীরে ধীরে বয়সেতে
মোকলেছে জাতে ওঠে,
জেন্টলে পাকে তার হাত।
এতদিন ছিল ক্ষেত
মুখে শুধু ঝাড়ি-চেত,
মাজতোনা কোনোদিন দাঁত।

নয়তলা বাড়ি হেঁকে
কারুকাজে দেয়াল এঁকে,
ভাইজানে লাগে সুনজর।
একদিন ঘরে এসে
ভাইজান কাছে বসে,
কপালেতে দিয়ে যায় বর।

মোকলেছ এরপর
দাঁত মাজে হরহর,
সুশীলেতে ওঠে তার নাম।
অংকেতে গড়বড়
ইংলিশে নড়চড়
ভূগোলে সে পায় বেশ দাম।

এর জমি ওকে দিয়ে
ফতোয়ায় ভেঙে বিয়ে
নাম হয় দ্বীনদরদী,
বারবার খোদাগৃহে
হজ্ব করে বাড়ি এসে
বাড়িয়ে দেয় বখরার ফি।

হাজীসাবের মাহফিল
লোক করে কিলবিল
ওয়াজ হয় টানা তিনদিন।
হেসেকেঁদে শ্রোতাগণ
করে ফেলে দৃঢ়পণ
কাটবে না দাড়ি কোনোদিন।

হাজী অার পাজি নেই
করেনা অার খাই খাই
চাঁদা সবে ঘরে দিয়ে যায়,
সারাদিন বকবক
রাতে কষে জমি-ছক
মান সব হাজীসাবে পায়।

পীর সাব দোয়া দেন
হাজী নন যেনতেন
অায়ু যেন বেড়ে যায় তার,
দুনিয়ায় অাখেরাতে
হাজী যেন সুখে থাকে
খোদা যেন পুল করেন পার।

অালহাজ্ব মোকলেছ
চুরি করতো নেকলেস
লোকে অার জানেনা তা অাজ,
এলাকার সুশীলেরা
কেউ ছাগ কেউ ভেড়া
সবারই মুখভরা লাজ।

জুমাবারে মসজিদে
দোয়া চলে কেঁদেকেটে
হাজীসাবে সুস্থ করো খোদা,
নেককাজে হাজীসাব
জনসেবায় হাজীসাব
তিনিই পালেরগোদা।

মিলাদেতে জিলাপি
খতমেতে বিরানি
মোল্লার জিভ তড়পায়,
হাদিয়ার বিল নিয়ে
ক্যাবলামো হাসি দিয়ে
দোয়ামাঝে তোড়জোড় হয়।

নতুন এক মসজিদ
লাগে নাকি পূবদিক
লোকেরা হাজীসাবে কয়,
খোদাঘর নির্মাণে
কবরের নির্জনে
জান্নাত নাহি ফসকায়।

নূর অালির বাস্তুভিটা
করে তারে চিটা চিটা
দখলে নেয় মুসুল্লিরা সব,
শহরে তোর নেই কাজ
গাঁয়ে গিয়ে খই ভাজ
নইলে তোর সাঙ্গ হবে ভব।

লামছাম দু'কড়ি
সবে মিলে দিতে পারি
সোয়াবেতে তোর ভাগ চাই,
নামাজ পড়ে লোকজন
দোয়া করবে সারাজনম,
ভেস্ত ছাড়া উপায় মোদের নাই।

ক্রন্দনে ফুলকিরা
ঝরে পড়ে নূর অালিরা
হাজীসাব ওলি হয়ে যান,
নাম ফোটে হাজীসাবে
মোল্লায় দেখে খাবে
ফিরদউসে হাজী করে গমন।

অাল্লার ওলি মোদের
হাজী মো: মোকলেছের
গুণের নেই সীমা-পরিসীম,
পীর দেন বরকত
খোদা করে রহমত
পরকাল হবেনা অচিন।

ব্যবসায়ী সুশীলেরা
অাহ্লাদে চুলচেরা
প্রৌঢ়ত্বে নতুন কিছু চান,
পুরাতন পিষ্টক
পড়ে গেছে ইষ্টক
হাজীসাবে সব সমাধান।

অারেকখান মেশিনেতে
সুশীল ভাই মজে গেছে
লজ্জায় বলে হাজীসাবে,
হাজী বলেন - খাবি খা,
রাত্রিতে পাবি যা
চাঁদা মোরে দিতে হবে অাগে।

জুমাবারে হাজীসাব
ব্যবসায়ী, কুশীলব
সবে মিলে কাঁদে খোদা-পায়ে,
খোদাসাব মহীয়ান
ধনীলোকে গরীয়ান
ক্ষমা দেন পয়সার রায়ে।

অালহাজ্ব মোকলেছ
চুরি করে নেকলেস
খোদাপাকের পেয়েছে অাশীষ,
সবকিছু খোদা পারে
মান দেয় বান্দারে
বুঝিস কি নাই-বা বুঝিস।

বিভাগ: 

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

মুফতি মাসুদ
মুফতি মাসুদ এর ছবি
Offline
Last seen: 2 weeks 3 দিন ago
Joined: সোমবার, আগস্ট 14, 2017 - 6:00অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর