নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • গোলাপ মাহমুদ
  • দীব্বেন্দু দীপ
  • মুফতি মাসুদ
  • নুর নবী দুলাল

নতুন যাত্রী

  • বিদ্রোহী মুসাফির
  • টি রহমান বর্ণিল
  • আজহরুল ইসলাম
  • রইসউদ্দিন গায়েন
  • উৎসব
  • সাদমান ফেরদৌস
  • বিপ্লব দাস
  • আফিজের রহমান
  • হুসাইন মাহমুদ
  • অচিন-পাখী

আপনি এখানে

#অযাচিত_বাক্যব্যয়...! পার্ট-অন্ধশিক্ষা...!


আমরা অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী-
আমরা সোনার বাংলা গড়তে চাই-
আমরা ধর্মনিরপেক্ষ সমাজব্যবস্থা গড়তে এগিয়ে যাচ্ছি-

“ সাংস্কৃতিক স্বাধীনতা ছাড়া রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক স্বাধীনতা অর্থহীন। তাই মাটি ও মানুষকে কেন্দ্র করে গণমানুষের সুখ শান্তি ও স্বপ্ন এবং আশা-আকাঙ্খাকে অবলম্বন করে গড়ে উঠবে বাংলার নিজস্ব সাহিত্য-সংস্কৃতি। ” -বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

আমাদের আমূল রাজনৈতিক দর্শন কিভাবে পাল্টে যায় তারই বাস্তব প্রতিচ্ছবি দেখছি, যে স্বপ্ন জাতির পিতার উক্তিতে প্রকাশিত অথচ বর্তমান বাস্তবতার কাছে অসহায় ভাবে পর্যদস্তু, কবে থেকে আমাদের সংস্কৃতি মরু সংস্কৃতির সাথে একীভূত হয়েছে বুঝতেই পারিনি, যা ছিল এবং আছে এখনো ততটাই সাম্প্রদায়িক ও সাংঘর্ষিক আধুনিক সমাজব্যবস্থার সাথে, সত্যিই কোনদিন কি কোন ইতিহাসে শান্তির ছিটেফোঁটা ছিল মরু সংস্কৃতিতে, তা অবশ্য ছিল #আলিফ_লায়লা বা #আরব্যোপন্যাস-এ...!

“ আর সাম্প্রদায়িকতা যেন মাথাচারা দিয়ে উঠতে না পারে। ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র বাংলাদেশ। মুসলমান তার ধর্মকর্ম করবে।হিন্দু তার ধর্মকর্ম করবে। বৌদ্ধ তার ধর্মকর্ম করবে। কেউ কাউকে বাধা দিতে পারবে না। কিন্তু ইসলামের নামে আর বাংলাদেশের মানুষকে লুট করে খেতে দেওয়া হবে না। ”
-বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

ধর্মনিরপেক্ষতা ধর্মহীনতা নয়, রাষ্ট্র কোন ধর্মের পৃষ্ঠপোষকতা বা কোন ধর্মের পক্ষে সাফাই বা সমর্থন দিবে না, প্রচলিত আইন ব্যবস্থা গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রব্যবস্থা ও সংবিধান অনুযায়ীই হবে- এরকমই সম্ভবত হওয়ার কথা ছিল, যা এখন #গালগপ্পো'তে পরিণত হয়েছে; লক্ষ্য করলে দেখা যাবে অলিগলি এখন ধর্মচর্চা আড্ডাখানা, প্রতিটি মন্দিরের ঠিক নিকটেই পারলে মন্দিরের জায়গা দখল করেই মসজিদ হচ্ছে, এতিমখানাও হচ্ছে, নামাজের/আযানের জন্য পূজাকর্ম বন্ধ(বাজনা, যা পূজার জন্য গুরুত্বপূর্ণ আচার) রাখা বাধ্যতামূলক, যদিও কখনো শোনা যায়নি পূজার জন্য আযান একটু দেরী তে শুরু হয়েছে, যাই হোক হিন্দু জনগোষ্ঠী ভালো করেই সম্প্রীতি বজায় রাখতে শিখেছে, তাই হয়তো ৭১'র পরবর্তী তাদের সংখ্যাও হ্রাস পাচ্ছে, এটা কিন্তু রাষ্ট্রের জন্য গর্বের(তাচ্ছিল্য), হিন্দুদের জন্য সম্মানের; তেলমর্দনকারী প্রতিষ্ঠান #হিন্দু_বৌদ্ধ_খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ এখন অবধি বিশাল সফলতা অর্জন করেছে- নাসিরনগর হামলা/রামু বৌদ্ধবিহার হামলা সহ ইত্যাদিতে বিশাল মানববন্ধন করেছে, আর কিছু করেছে কিনা জানিনা; প্রশ্ন হচ্ছে- ধর্মকে ব্যবহার করতে যারা দ্বিধান্বিত নয়, রাজনৈতিক ইতিহাসও কিন্তু ধর্মভিত্তিক রাজনীতির নৃশংসতা দেখে অভ্যস্ত, তারপরও কি বন্ধ হয়েছে সে খেলা, হয়নি; #হুমায়ুন_আজাদ_স্যার ঠিকই বলেছিলেন-
মসজিদ ভাঙে ধার্মিকেরা-
মন্দির ভাঙে ধার্মিকেরা-
তবু তারা দাবী করে তারা ধার্মিক;
আর যারা ভাঙাভাঙিতে নেই-
তারা হয় অধার্মিক অথবা নাস্তিক...!

“ আওয়ামিলীগ ও তার কর্মীরা যে কোনো ধরণের সাম্প্রদায়িকতাকে ঘৃণা করে। আওয়ামিলীগের মধ্যে অনেক নেতা ও কর্মী আছে যারা সমাজতন্ত্রে বিশ্বাস করে; এবং তারা জানে সমাজতন্ত্রের পথই একমাত্র জনগণের মুক্তির পথ। ধনতন্ত্রবাদের মাধ্যমে জনগণকে শোষণ করা চলে। যারা সমাজতন্ত্রে বিশ্বাস করে, তারা কোনদিন কোনো রকমের সাম্প্রদায়িকতায় বিশ্বাস করতে পারে না। তাদের কাছে মুসলমান, হিন্দু, বাঙ্গালী, অবাঙ্গালী সকলেই সমান। ”
-বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান

ভাবতে অবাক লাগে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী যে দল, যাদের আদর্শ #বঙ্গবন্ধু, তারা কি সেই আদর্শিক জায়গায় তাদের ন্যূনতম অবস্থান করতে পেরেছে, কতটা পেরেছে, যা পেরেছে তা কতটা গণতান্ত্রিক পন্থা অবলম্বন করে পেরেছে, তারা কেন আজ সবথেকে বেশি নেতিবাচক ভাবে সমালোচিত হচ্ছে, কেন আজ সংখ্যালঘু তাদের ক্ষমতাসীন থাকা অবস্থায় সর্বোচ্চ নির্যাতিত আর বিতাড়িত হচ্ছে, কেন আজ বাকস্বাধীনতা রহিত হচ্ছে ৫৭ধারার কুচক্রে, কেন মুক্তচিন্তা চর্চার মানুষ তাঁর সমৃদ্ধ চিন্তার জন্য খুন হচ্ছে, কেন এভাবে বিচারহীনতার রাজনৈতিক চর্চা হচ্ছে, সব যুদ্ধাপরাধীর বিচার কি আসলেই হবে বিশেষ করে যারা ক্ষমতাসীন দলে রয়েছে, শিক্ষাব্যবস্থা কে ধর্মান্ধতায় ভরপুর করে জাতির ভবিষ্যৎ কে অন্ধকারের দিকে ঠেলে দেয়ার অপপ্রয়াস কেন, ধর্মীয় উগ্রবাদীদের সনাক্ত করার পরও(যারা ওয়াজের মাধ্যমে উগ্রতা ছড়ায়) ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছেনা, কওমী মাদ্রাসা গুলো যে আধুনিক শিক্ষাব্যবস্থার সাথে সাংঘর্ষিক তারপরও কেন অনুৎসাহিত করা হয় না (ভিক্ষুক ছাড়া আর কি সৃষ্টি করে এরা), শিক্ষা সংস্কারের নাম করে পাঠ্যবইগুলো সাম্প্রদায়িকতাপূর্ণ ও দেশকে দ্বিখণ্ডিত করার অপপ্রয়াস কেন, #সোনার_বাংলাদেশ গড়ার নাম করে #মদিনা_সনদ বাস্তবায়নের পথেই যদি হাঁটতে হয়, তবে #জাতির_পিতা'র আদর্শিক স্বপ্নকে অসম্মান করা হবে, তার থেকে #গোলাম_আযম কে জাতির পিতার স্থলাভিষিক্ত করে #বঙ্গবন্ধু'র সম্মানটুকু রক্ষিত হোক; যে মানুষটা জীবনের শেষদিন অবধি ধর্মনিরপেক্ষ সমাজতান্ত্রিক সমাজব্যবস্থার স্বপ্ন দেখেছিলেন, স্বপ্ন দেখেছিলেন ক্ষুধা-দারিদ্রমুক্ত স্বনির্ভর বাংলাদেশের, আমরা সে স্বপ্ন থেকে বহুদূরে সরে গেছি...!

“ অযোগ্য নেতৃত্ব, নীতিহীন নেতা ও কাপুরুষ রাজনীতিবিদদের সাথে কোনোদিন একসাথে হয়ে দেশের কাজে নামতে নেই। তাতে দেশসেবার চেয়ে দেশের ও জনগণের সর্বনাশই বেশি হয়। ”
-বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

আজ নেতৃত্ব সৃষ্টির লক্ষ্যে এগুনোর প্রয়োজন, বুদ্ধিজীবিদের দায়িত্ব শুধু লেখনিতেই আর পরামর্শেই নয়, সোজা মাঠে প্রয়োজন, জাতির ভবিষ্যতেরা আজ দ্বিধাবিভক্ত, তাদের সঠিক দিকনির্দেশক প্রয়োজন, মতপ্রকাশ স্বাধীনতা একটি জাতির উন্নতির ধারা অব্যাহত রাখে, পক্ষের মত যেমন আছে বিপক্ষ মতও থাকবে এটাই স্বাভাবিক, যুক্তির মঞ্চে দাঁড়িয়ে কথা বলার পরিবেশ প্রয়োজন, মুক্তচিন্তার চর্চা, আর শিক্ষাব্যবস্থা কে ধর্মীয় কলুষিত হওয়া থেকে মুক্ত রাখা একান্ত আবশ্যক...!

tAKE cARE & dON'T fORGET tO sMILE & lOVE uRSELF!♥♥♥

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

সব্যসাচী সরকার
সব্যসাচী সরকার এর ছবি
Offline
Last seen: 2 weeks 1 দিন ago
Joined: মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী 7, 2017 - 8:47অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর