নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

There is currently 1 user online.

  • ইউসুফ শেখ

নতুন যাত্রী

  • সুশান্ত কুমার
  • আলমামুন শাওন
  • সমুদ্র শাঁচি
  • অরুপ কুমার দেবনাথ
  • তাপস ভৌমিক
  • ইউসুফ শেখ
  • আনোয়ার আলী
  • সৌগত চর্বাক
  • সৌগত চার্বাক
  • মোঃ আব্দুল বারিক

আপনি এখানে

মঞ্জুরে খোদা টরিক এর ব্লগ

কূটতর্ক নয়- কওমী প্রেমিকদের প্রতি জিজ্ঞাসা..


অগ্রজ ছাত্রনেতা পিনাকী ভট্রাচার্যকে বলছি, হাওয়াই দাওয়াইয়ে বিশ্বাসী হলে তো- হাওয়ার পক্ষেই থাকতাম! দুই শিবিরের কোন এক দিকে, খুব সহজেই মিলতাম! আমার একটি নোটে তাঁর মন্তব্যের প্রেক্ষিতে কথাগুলো বলা! এ লেখা উনার কোন মন্তব্যের জবাব নয়। যে কথার জবাব অনেক ভাবেই দিয়েছি। তাই আর নতুন করে বলছি না। কূটতর্ক নয়- কওমী প্রেমিকদের প্রতি আমার জিজ্ঞাসা..‍!

নির্বাচনকালীন সরকার নয়, সংখ্যানুপাতিক নির্বাচনই সংকটের সমাধান


ভূমিকা
আধুনিক বিশ্বের গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক ব্যবস্থায় ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রধান ও জনপ্রিয় প্রক্রিয়া হচ্ছে নির্বাচন। কিন্তু নির্বাচন কোন প্রক্রিয়ায় হবে সেটা খুব গুরুত্বপূর্ণ, অন্তত বাংলাদেশের মত সদা সংঘাতময়, অসহিষ্ঞু, অবিশ্বাসের রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও বাস্তবতার দেশে। আমাদের দেশে রাজনৈতিক সংঘাত ও অস্থিরতার একটি প্রধান কারণ হচ্ছে বর্তমান নির্বাচনী ব্যবস্থা। এমনটা বলার কারণ হচ্ছে, বিভিন্ন সময় নির্বাচনে, ভারসাম্যহীন ফলাফলের কারণে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে অবিশ্বাস তৈরী হয়। যা পরবর্তিতে সহিংসতায় রুপ নেয় এবং রাজনৈতিক অচলাবস্থার সৃষ্টি করে।

দেশে মাথা থাকবে ভোটের জন্য, কিন্তু মগজ থাকবে না..!


কথাগুলো অনেক আগে থেকেই বলছি, বরং কোপাকোপির এই ঘটনায় যারা আকাশ থেকে পড়ছেন.., তাদের কান্ড দেখে বড়ই করুণা হচ্ছে..! চাপাতি’র কাজ শুরু হয়েছে অনেক আগেই, সামান্য বিরতিতে আবার তারই ধারাবাহিকতা এটা..! তবে এটা কিছুই না.., দেশে কয়েক কোটি কষাই তৈরী হয়েছে এই কাজ করার জন্য..! যা হচ্ছে, এগুলোকে চাপাতির জং বা মরিচা ছাড়ানোর মহড়া বলতে পারেন!

স্যার, আপনাকে এখনও পাগলই বলবে


২০০৮ সালে ড.মুহম্মদ জাফর ইকবাল জাপান এলে বাঙালি কমিউনিটির উদ্দেশ্যে একটি বক্তৃতা দেয়ার জন্য আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে আমন্ত্রন জানাই। সেখানে তিনি প্রবাসীদের ভূমিকা, কৃতিত্ত্বও করণীয় নিয়ে একটি সাবলীল প্রেজেনটেশান দেন যা উপস্থিত সবাইকে মুগ্ধ করেছিল। যাইহোক এই অনুষ্ঠান ঘিরে আমাদের বাসায় স্যার এবং ম্যাডাম ইয়াসমিন হকের সাথে অনেক সময় একান্ত আড্ডার সুযোগ হয়। দেশে থাকতেও বিভিন্ন সামাজিক ও ছাত্র ইউনিয়ন সংগঠনের বিভিন্ন কর্মসূচীতে স্যারের অংশগ্রহন ও সহযোগিতার কথা খুব মনে পড়ে। কিন্তু সেদিনই প্রথম উনার সাথে আমার ব্যক্তিগত আড্ডার সুযোগ হয়। নিত্য হাসিমাখা অসম্ভব সহজ, সাবলীল ও বিনয়ী একজন অনন্য কৃতি মানুষের কথা

ছাত্রলীগ ছাত্রআন্দোলনে বপন করল অবিশ্বাসের বীজ!


তারাই সবচেয়ে বড় মূর্খ, যারা নিজেদের চালাক ভাবে কিন্তু অন্যদের ভাবে নির্বোধ!
যে সেনাপতি প্রতিপক্ষকে দূর্বল ভেবে যুদ্ধে অবতীর্ণ হয়, তার পরাজয় নির্ঘাত!!

--------------------------------------------------------
ছাত্রলীগ ছাত্রআন্দোলনে বপন করল অবিশ্বাসের বীজ! যে কারণে কথাগুলো বলছি,

তারপরও বলতে হবে শিক্ষার উন্নয়ন..?


কোন দলান্ধ ব্যক্তি ছাড়া, বাংলাদেশে কেউ বলবে না যে সবকিছু ঠিকঠাক মত চলছে। আর মাত্র ৩ বছর পর স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তি উদযাপিত হবে। এই ৫০ বছরে শিক্ষার মত একটি অতি মৌলিক বিষয়কে আমরা একটি কাঠামোর মধ্যে দাড় করাতে পারিনি। ঠিক করতে পারিনি, শিক্ষার লক্ষ্য-উদ্দেশ্য। এবং তার সাথে সঙ্গতি রেখে একটি শিক্ষাব্যবস্থা। অথবা যে শিক্ষাব্যবস্থা আছে সেখানেও কোন সৃংখলা আনা যায়নি, যা আছে সেখানেও তৈরী হচ্ছে নিয়ত বিশৃংখলা ও নৈরাজ্য!

সিকি শতাব্দী পেরিয়ে ৯০'র গণআন্দোলন, প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি, নিখাদ সন্ধ্যা ছাড়া আর কি?


তারুণ্যের একটা ভাষা আছে। আছে আলাদা একটা মাত্রা। কিন্তু সেই ভাষা ও মাত্রাও সব তারুণ্য ধারন করে না। অনেকে করে। আমাকে-আমাদের করেছিল। সেই তারুণ্য সন্ধি ও আত্মসমর্পনের ছিল না, ছিল আপোষহীন ও বেপরোয়া। ছিল দারুণ দূর্বার, তুমুল তুখোর! ছিল চোখে আগুন, বুকে বারুদ আর মুঠে প্রচন্ড ঘৃনা ও প্রতিবাদ। যে স্পর্দ্ধিত তারুণ্য লড়েছিল নিরস্ত্র এক বিশ্ব ব্যহায়া সামরিক জান্তার বিরুদ্ধে! সে এক রক্ত হিম করা গল্প! সিকি শতাব্দী পার হয় যে গল্পের! সেকি কেবলি গল্প নাকি এক দুস্বপ্নের রুপকথা?

প্রশ্নঁফাস ও নকল-কোচিং বন্ধে পরীক্ষাপদ্ধতির পরিবর্তন জরুরী..


প্রশ্নপত্র ফাঁস ও নকল বন্ধ, কোচিং বাণিজ্য দূর করতে, পরীক্ষাপদ্ধতির আমুল পরিবর্তন দরকার।
কেন প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়? কেন নকল হয়? কেন কোচিং বাণিজ্য বন্ধ হয় না? কারণ শিক্ষার্থীর মাথায় একটি বিষয়ই সেই সময় কাজ করে তা হচ্ছে, কোন মূল্যে তাকে কৃতকার্য হতেই হবে, ভাল করতেই হবে! সারাবছর সে স্কুল-ক্লাসে যাই করুক না কেন চুড়ান্ত পরীক্ষার মাধ্যমেই বিষয়টি নির্ধারিত হবে। এই মনোভাবই ছাত্রদের বেপরোয়া করে এবং অনৈতিক পথে পা বাড়ায়। আর একশ্রেণীর সুযোগসন্ধানী এই অবস্থার সুযোগ নেয় এবং বাণিজ্য করে।

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

মঞ্জুরে খোদা টরিক
মঞ্জুরে খোদা টরিক এর ছবি
Offline
Last seen: 6 দিন 20 ঘন্টা ago
Joined: বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী 4, 2016 - 11:59পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর