নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

There is currently 1 user online.

  • নুর নবী দুলাল

নতুন যাত্রী

  • অনিক চক্রবর্তী
  • অনুভব রিজওয়ান
  • মোমিন মাহদী
  • নাঈম উদ্দীন
  • সাইফ উদ্দীন
  • সংগ্রামী আমি
  • মোঃ নাহিদ হোসোইন
  • পাপেন ত্রিপুরা
  • মোঃ রেফায়েত উল্ল্যাহ
  • রজন্ত মিত্র

আপনি এখানে

মুক্তচিন্তা

মুক্তচিন্তা

কুরআন অনলি: (১৭) শয়তানের গডফাদার ও মুহাম্মদের আল্লাহ!


দ্বিতীয় অধ্যায়:"মুহাম্মদের আল্লাহ!"

স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) তার স্ব-রচিত ব্যক্তি-মানস জীবনী গ্রন্থ (Psycho-biography) কুরআনে বার বার ঘোষণা করেছেন যে ধর্মশাস্ত্রের নিকৃষ্টতম চরিত্র 'শয়তান' এর যাবতীয় কর্মকাণ্ডের পেছনের মদদদাতা যিনি, তিনি হলেন এই মহাবিশ্বের স্রষ্টা স্বয়ং! যে স্রষ্টাকে তিনি 'আল্লাহ' নামে আখ্যায়িত করেছিলেন। তিনি আরও দাবী করেছেন যে আল্লাহর অনুমতি ছাড়া শয়তানের কিচ্ছু করার ক্ষমতা নেই ও স্বয়ং আল্লাহ অবিশ্বাসীদের বিপথগামী ও পথভ্রষ্ট করেন!

মুহাম্মদের ভাষায়: [1] [2]

খালেদা জিয়া গ্রেপ্তার আর বায়বীয় চিন্তা


I assume, আওয়ামী লীগ চাইছে খালেদা জিয়া কে রাজনীতি থেকে দূরে পাঠাবে। শুধু খালেদা জিয়া না, পুরো জিয়া পরিবার। ধারনা করা যায়, মির্জা ফক্রল সাহেব টোপ গিলেছেন। ফাটা দা চাল চেলেছে মনে হচ্ছে। মির্জা কাকাও খাচ্চে। খুব মজা হবে আশা করি। তারকে ভায়া হবে বলির পাঠা।উনি থাকবেন আকাশে বাতাসে। বাংলার ধানের শীষে। পুটুস করে শুনলাম ম্যাডাম নাকি ভাবিল ২/১ দিন জেল খানায় থাকা লাগবে। তাই উনি রাজি হ্যইল। কিন্তু বাংগালির যে এই তামিল নায়ক হয়ার শখ, এইটা খুবই খারাপ। ম্যাডাম রে মির্জা কাকা প্রোবাব্লি এই গেম বুজাইয়ে ঢুকয়ে দেছে, ম্যাডাম আর তারকে হইল দূর্নীতির দায়ে অভিযুক্ত, তাই কোন সিনারি তেই আর তারা থাকবে না। বিরাট প্ল্যান

এসো বন্ধু মানবতার কল্যাণে


প্রযুক্তির উৎকর্ষ এবং তার ব্যাবহারিক বাস্তবতায় অজ্ঞতা আর অন্ধাকরের যুগ শেষ হয়েছে অনেক আগেই। শিল্পবিপ্লবের পর-পরই সভ্য যুগে প্রবেশ করে বিশ্ব। শুরু থেকেই সভ্যতা দুই ভাগে বিভক্ত দৈহিক শ্রম নির্ভর সমাজ সভ্যতা। বৌদ্ধিক শ্রম নির্ভর সমাজ সভ্যতা। এখানে দৈহিক শ্রম বলতে শারীরিক পরিশ্রমকে বুঝানো হয়েছে। আর বৌদ্ধিক শ্রম বলতে জ্ঞান বা মেধা ভিত্তিক পরিশ্রম উদ্দেশ্য।

একটা সময় শারীরিক শ্রমকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হলেও সময়ের পরির্বতনে সঙ্গে সঙ্গে পরিবর্তনে এসেছে সমাজ, পরিবেশ, অর্থনৈতিক কর্মকান্ড ও জীবন যাত্রায়।

১৪ই ফেব্রুয়ারী কি বিশ্ব বেহায়াপনা দিবস?


বিংশশতাব্দীতেও ভালোবাসা শব্দটা বাধানিষেধের জঞ্জাল থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি। আটকে আছে নানা অসুস্থ চেতনার বেড়াজালে। ছেলেরা সহজেই বলতে পারে যে সে কটা রিলেশন করেছে আবার এমনও অনেক আছে যারা সেটা প্রকাশ করে নাহ। তবে আমাদের দেশের সমাজব্যবস্থার মতো যেসব সমাজব্যবস্থায় নারীকে পুরুষের ব্যক্তিগত প্রোপার্টি মনে করা হয় সেখানে এমন মেয়েমানুষ খুব কমই দেখা যায় যারা বলতে পারে সে জীবনে এতোটা রিলেশন করেছে। কারন 'প্রেম করা' পুরুষের জন্য নাহ হলেও নারীর ক্যারেকটারের সাথে সম্পর্কিত ভাবা হয়ে থাকে। বিয়ের আগে প্রেমের সম্পর্ক থাকলেও বেশিরভাগ পুরুষ বউ হিসেবে এমন নারী আশা করে যার বিয়ের আগে কোনো সম্পর্ক ছিলো নাহ,

ধর্মীয় কুযুক্তি


মাঝে মাঝে ধর্মীয় চ্যানেল গুলো দেখি। না আমি ধার্মিক না যে ধর্ম জানার জন্য দেখি। আমি দেখি যে ধর্ম প্রচারকরা কত টুকু অযুক্তিক যুক্তি দিতে পারেন আর মানুষ কিভাবে কুযুক্তি গুলো গ্রহণ করে। ধর্ম প্রচারকরা আজকাল ধর্মকে বিজ্ঞান সম্মত প্রমান করার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন। কে কতটুকু বিজ্ঞান সম্মত প্রমান করতে পারেন তা নিয়া তাদের মাঝে প্রতিযোগিতা চলছে। আর এ কাতারে তাদের প্রধান হাতিয়ার হলো বিজ্ঞানের সীমাবদ্ধতা। আমরা জানি যে আজ বিজ্ঞান সব রহস্যের সমাধান করতে পারে নাই। বিজ্ঞান আজ অনেক অনেক কিছু জানে না। আর এটাকেই ধর্ম প্রচারক রা তাদের কাজে লাগান। আজ বিবর্তনবাদ যদিও পরিক্ষিত ভাবে প্রমানিত যে প্রকৃতির সবকিছ

হিন্দু কারা? আরব পৌত্তলিক ও সেমিটিক নবীদের সূর্য পুরাণ


আরবরা হিন্দু ছিলো না। হিন্দু কেবল মাত্র সিন্ধু সভ্যতার মানুষজনকে বুঝানো হয়। মুসলমান বর্গিরা আসার পর সিন্ধু সভ্যতার স্থানীয়দের তারা ‘হিন্দু’ নামে ডাকতে থাকে। আজকের ‘হিন্দু ধর্ম’ কিছুতেই ‘হিন্দুদের ধর্ম’ নয়। এটি পৌত্তলিক ধর্ম। তাই আরব পৌত্তলিকদের ধর্ম ভারতবর্ষের পৌত্তলিকদের জ্ঞাতি কিনা তার কিছু পর্যালোচনা দেখা যেতে পারে। যেহেতু শ্রীকৃষ্ণ এবং মুসা নবীর কাহিনীটি হুবহু এক কাজেই গায়ের জোরে নিশ্চয় সব কিছু উড়িয়ে দেয়া যাবে না…।

ধর্মীয় যুক্তির ভুলগুলো


সভ্যতার প্রায় আদিকাল থেকেই একের পর এক ধর্মের উৎপত্তি হয়ে চলেছে। মজার ব্যাপার, এই ধর্ম গুলির আচার আচরণের মধ্যে বিভিন্ন পার্থক্য থাকা সত্ত্বেও এদের যুক্তিগুলি সেই শুরু থেকে একই রকম রয়ে গেছে, তা সে ধর্মীয় তাত্ত্বিক আলোচনার ক্ষেত্রেই হোক বা কোনো সামাজিক সংস্কারের ইস্যুতে। যে ধরনের যুক্তি কোন হিন্দু ধর্মীয় বই তে পাওয়া যায়, একই ধরনের যুক্তি পাওয়া যায় ইসলাম ও খ্রিস্ট ধর্মীয় গ্রন্থগুলিতে। যুক্তিগুলি যতই ভ্রান্ত হোক না কেন, সাধারণ মানুষের অজ্ঞতা এবং চাতুর্যপূর্ণ পরিবেশনের কারণে সেই আদি কাল থেকেই বেশিরভাগ মানুষকে অল্প বিস্তর প্রভাবিত করে।

The Personal is Political


2nd Wave Feminism এর মূল আইডিয়াকে একবাক্যে প্রকাশ করা যায় তা হলো "The Personal is Political".

নারীবাদ একটি সামাজিক আন্দোলন যার মূল লক্ষ্য হচ্ছে সমাজে নারীদের সাথে হওয়া বৈষম্য, শোষণ, নিপীড়ন, উৎপীড়ন বন্ধ করে নারী-পুরুষের মধ্যে সমতা আনায়ন। ১৯ শতকের প্ররাম্ভে কিছু মুক্তিকামী নারী মনে করতো সমাজে নারীদের সাথে বৈষম্যের অবসান ঘটতে পারে নারীদের ভোটাধিকার প্রাপ্তির মাধ্যমে। তারা মনে করতো নারীদের মতামত প্রকাশের অধিকার নেই বলেই তারা বৈষম্যের শিকার। আর এই দাবীকে সামনে রেখে 1st Wave Feminism এর যাত্রা শুরু এবং এর সমাপ্তি ঘটে নারীদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করার মাধ্যমে।

খালেদা জিয়ার মামলা, শাস্তি এবং রাজনৈতিক নষ্টচরিত্র ও পথভ্রষ্টদের উন্মাদনা



দীর্ঘকাল যাবৎ আমাদের দেশের শাসকগণ মনে করে থাকে: তাদের কোনো অপরাধ নাই। তারা রাষ্ট্রক্ষমতায় থেকে যেকোনো অন্যায়-কর্মকাণ্ডপরিচালনা করতে পারবে। এতে তাদের কোনো অপরাধ নাই। তাদের কোনো কৈফিয়ৎ নাই। তাদের কোনো জবাবদিহিতা নাই। তাদের কোনো পাপ নাই। আর তাদের কখনও বিচারের সম্মুখীন করা যাবে না।
এই দেশে ‘যত দোষ নন্দ ঘোষ’। অর্থাৎ, যত পাপ শুধু গরিবের।

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর