নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • বিকাশ দাস বাপ্পী
  • মুফতি মাসুদ
  • নরসুন্দর মানুষ
  • সৈকত সমুদ্র
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • সাইয়িদ রফিকুল হক

নতুন যাত্রী

  • আদি মানব
  • নগরবালক
  • মানিকুজ্জামান
  • একরামুল হক
  • আব্দুর রহমান ইমন
  • ইমরান হোসেন মনা
  • আবু উষা
  • জনৈক জুম্ম
  • ফরিদ আলম
  • নিহত নক্ষত্র

আপনি এখানে

ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীর কালো থাবা থেকে রক্ষা পেলেন না রাজশাহীর আইএইচটি'র ছাত্রীরাও!


রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির (আইএইচটি) ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে আহত হয়েছে অন্তত পাঁচ ছাত্রী।

অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে অনির্দিষ্টকালের জন্য প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে শিক্ষার্থীদের হোস্টেল ছাড়তেও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আজ বেলা ১১টার দিকে তাদের ওপর এই হামলা করে ক্যাম্পাস ছাত্রলীগ ও বহিরাগত ছাত্রলীগের প্রায় ৫০ জন।

ঘটনার সুত্রাপাত ডিসেম্বরের তিন তারিখ আইএইচটি ক্যাম্পাসে মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের একটি কেন্দ্রীয় কর্মসূচি ছিল।আর এই কর্মসূচিতে কয়েকজন ছাত্রী যেতে পারেননি। এ নিয়ে ওই দিন ছাত্রলীগের নেতারা ছাত্রীনিবাসে ঢুকে ছাত্রীদের অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন।

পরবর্তীতে ছাত্রীদের আজ নিরাপত্তা চেয়ে অধ্যক্ষের কার্যালয়ে স্বারকলিপি দেন, এতেই ছাত্রলীগ ক্ষুব্ধ। স্বারকলিপি দিয়ে বেরুতেই হামলা। বেশ ক'জন ছাত্রী ছাত্রীনিবাসে ঢুকতে পারলেও পেছনে থাকা ছাত্রীরা রেহাই পাইনি ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী থাবা থেকে। ঘটনার পাশেই পুলিশ নিশ্চুপ দাঁড়িয়ে আছে। পুলিশ বোধেহয় নিরবে স্লোগান দিচ্ছিলেন পুলিশ ছাত্রলীগ ভাই ভাই ছাত্রীদের রক্ষা নাই।

পেশায় এক জন সংবাদ কর্মী হওয়াই অধ্যক্ষকে ফোন করলাম, কি অবলীলায় তিনি ছাত্রলীগের সোনার ছেলেদের ছাত্রীদের উপর এই হামলার কথা অস্বীকার করলেন। তিনি বললেন, ছাত্রলীগ ছাত্রীদের ওপরে হামলা করেনি। মেয়েরা হুড়োহুড়ি করে একটি ছোট গেট দিয়ে ছাত্রীনিবাসের ভেতরে ঢুকতে গিয়ে পড়ে গেছেন। আর এই উদ্ভূত পরিস্থিতি সামাল দিতেই নাকি ছাত্র ও ছাত্রীনিবাস অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ। ছাত্রলীগের সাথে নাকি ভুল বোঝাবুঝি হয়েছি মাত্র।

শিক্ষকরা জাতি গড়ার কারিগার জাতির মেরুদণ্ডও বলা হয় আর এই শিক্ষক কিভাবে সরকারের পা চাটা গোলামে পরিণত হতে পারে বিশ্বাস করাটাই কঠিন।

স্বাধীনতার চেতনার নাম ও ধ্বজাধারী ছাত্রলীগের হাত থেকে যেমন রক্ষা পাইনি মাগুরার মায়ের পেটে থাকা ঐ সন্তানটি তেমনি রক্ষা পাইনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে দর্জীর কাজ করা বিশ্বজিৎ ও। কত শত মিডিয়ার সামনেই কোপানো হল বিশ্বজিতকে খবরের হেড লাইনে এল খুনিদের ছবি অথচ অধিকাংশই মামলা থেকে খালাস দু একজনের মৃত্যুদণ্ড বহাল থাকলেও তা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। পুলিশ ওদের হাতে, জনগণের শেষ ভরসা যে ন্যায় বিচারের আদালত সেটাও ওদের দখলে। সাধারণ মানু, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের এই শিক্ষার্থী আজ জিম্মি ছাত্রলীগের এই কালো সন্ত্রাসী থাবার হাতে।

ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজী চরমসীমায় পৌছানোর চলে ২০০৯ সালের মার্চের দিকে ছাত্রলীগের সাংগঠনিক নেতৃত্ব থেকে শেখ হাসিনা নিজেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন। সেই থেকেই শুরু লাগামহীন ভাবে তাদের এই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড।

শ্রদ্ধেয় প্রয়াত হুমায়ূন আজাদ স্যার লিখেছিলেন,

''আমি জানি সব কিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে।
নষ্টদের দানবমুঠোতে ধরা পড়বে মানবিক
সব সংঘ-পরিষদ;- চ’লে যাবে অত্যন্ত উল্লাসে
চ’লে যাবে এই সমাজ সভ্যতা-সমস্ত দলিল-
নষ্টদের অধিকারে ধুয়েমুছে, যে-রকম রাষ্ট্র
আর রাষ্ট্রযন্ত্র দিকে দিকে চ’লে গেছে নষ্টদের
অধিকারে। চ’লে যাবে শহর বন্দর ধানখেত
কালো মেঘ লাল শাড়ি শাদা চাঁদ পাখির পালক
মন্দির মসজিদ গির্জা সিনেগগ পবিত্র প্যাগোডা।
অস্ত্র আর গণতন্ত্র চ’লে গেছে, জনতাও যাবে;''

চুপ থাকবেন, থাকুন! আপনি নিজেও ধ্বংস হবেন আপনার ভবিষ্যৎ প্রজন্ম কে ও ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিয়ে যাবেন। তাই সময় এসেছে আসুন সংঘবদ্ধ হোন, নিজে বাঁচুন, আপনার ভবিষ্যতকে বাঁচান দেশ ও জাতিকে বাঁচান সন্ত্রাসীদের এই কালো ধাবার হাত থেকে।

আল আমিন হোসেন মৃধা (০৬/১২/১০১৭)

বিভাগ: 

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

আল আমিন হোসেন মৃধা
আল আমিন হোসেন মৃধা এর ছবি
Offline
Last seen: 4 দিন 7 ঘন্টা ago
Joined: রবিবার, এপ্রিল 2, 2017 - 11:30অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর