নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • বিকাশ দাস বাপ্পী
  • মুফতি মাসুদ
  • নরসুন্দর মানুষ
  • সৈকত সমুদ্র
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • সাইয়িদ রফিকুল হক

নতুন যাত্রী

  • আদি মানব
  • নগরবালক
  • মানিকুজ্জামান
  • একরামুল হক
  • আব্দুর রহমান ইমন
  • ইমরান হোসেন মনা
  • আবু উষা
  • জনৈক জুম্ম
  • ফরিদ আলম
  • নিহত নক্ষত্র

আপনি এখানে

গোলাপ মাহমুদ এর ব্লগ

কুরআন অনলি: (১১) নবুয়তের প্রমাণ দাবী - প্রতিক্রিয়া? – দুই


স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) তার সুদীর্ঘ ২৩ বছরের নবী জীবনে তার চারিপাশের মানুষদের উদ্দেশ্যে পূর্ববর্তী নবীদের যে অলৌকিক কিচ্ছা-কাহিনীগুলো প্রচার করতেন, তার সেই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে যখন অবিশ্বাসীরা মুহাম্মদের কাছে তার নবুয়তের প্রমাণ স্বরূপ তাদেরই মত কোন 'অলৌকিকত্ব (মোজেজা)' হাজির করতে বলেছিলেন; তখন তিনি তাদেরকে কীরূপ অপ্রাসঙ্গিক জবাব, অজুহাত, তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য, হুমকি-শাসানী ও ভীতি প্রদর্শন করেছিলেন, তার আলোচনা আগের পর্বে করা হয়েছে।মুহাম্মদের নিজস্ব জবানবন্দির আলোকে আমরা আরও জানতে পারি, অবিশ্বাসীরা মুহাম্মদের কাছে শুধু যে পূর্ববর্তী নবীদেরই অনুরূপ কোন প্রমাণ হাজির করতে বলেছিলেন তাইই

সংক্ষিপ্ত কুরআন - রিভিউ


ইসলাম বিশ্বাসী পণ্ডিত ও অপণ্ডিতদের অনেকেই যে দাবীটি প্রায়শই করে থাকেন তা হলো, 'ইসলাম খুবই সহজ সরল একটি ধর্ম!' বাস্তবিকই, ইসলাম মূলত: "একটি মাত্র মানুষের" প্রবর্তিত জীবন বিধান, যে মানুষটির নাম মুহাম্মদ ইবনে আবদুল্লাহ ইবনে আবদুল মুত্তালিব। সুতরাং, সঙ্গত কারণেই ইসলামকে সঠিকভাবে বুঝতে হলে মুহাম্মদ-কে জানতেই হবে। এর কোনই বিকল্প নেই। বলা হয়,

"যে মুহাম্মদ-কে জানে সে ইসলাম জানে; যে তাঁকে জানে না, সে ইসলাম জানে না।"

কুরআন অনলি: (১০) নবুয়তের প্রমাণ দাবী - প্রতিক্রিয়া? - এক


স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) আল্লাহর রেফারেন্সে তার সুদীর্ঘ ২৩ বছরের নবী জীবনে যে ৬২৩৬টি বাক্য বর্ষণ করেছিলেন, তার কমপক্ষে ১২৬০টি শুধুই পুরাকালের উপকথা। অর্থাৎ, 'কুরআনে' মুহাম্মদের প্রতি পাঁচ-টি বাক্যের একটি হলো (২০.২%) শুধুই পুরাকালের নবীদের কিচ্ছা-কাহিনী সম্বন্ধীয়; যার বিস্তারিত আলোচনা 'কুরআনে অবিশ্বাস ও তার কারণ (পর্ব-৮)' পর্বে করা হয়েছে!এই কিচ্ছা-কাহিনীগুলো প্রচারের সময় মুহাম্মদ বারংবার পৌরাণিক নবীদের অলৌকিক কর্মকাণ্ডের ('মোজেজা’) উপাখ্যান অবিশ্বাসীদের স্মরণ করিয়ে দিতেন। অতঃপর দাবী করতেন যে তিনিও তাদের মতই

কুরআন অনলি: (৯) আল্লাহর ‘জিন ও শয়তান’ প্রতিরোধ প্রকল্প!


স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) তার আল্লাহর রেফারেন্সে দাবী করেছেন যে তার আল্লাহ এবাদতের উদ্দেশ্যে মানুষ ছাড়াও 'জ্বিন' নামের আর এক অশরীরী জীবের সৃষ্টি করেছেন (৫১:৫৬), যারা তার কুরআন শ্রবণ করে 'বিস্ময়-বোধ' করেছিল!তিনি আমাদের জানিয়েছেন যে এই জীবেরা পূর্বে আকাশের বিভিন্ন ঘাঁটিতে সংবাদ শোনার জন্য বসে থাকতো। কিন্তু এখন তারা আর সেই কাজটি করতে পারে না এই কারণে যে, সর্বনিম্ন আকাশটি এখন 'কঠোর প্রহরী ও উল্কাপিণ্ড দ্বারা পরিপূর্ণ।' কী কারণে তার সর্বশক্তিমান আল্লাহ এই কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা-টি চালু করেছেন ও আল্লাহর এই নিরাপত্তা ব্যবস্থাটি নস্যাৎ করে যদি কোন “শয়তান” তার অভীষ্ট কার্য সম্পুর্ণ কর

কুরআন অনলি: (৮) কুরআানে অবিশ্বাস ও তার কারণ!


স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) তার আল্লাহর রেফারেন্সে সুদীর্ঘ ২৩ বছর ব্যাপী (৬১০সাল- ৬৩২ সাল) যে বানীগুলো প্রচার করেছিলেন তার এক বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো, একই বাক্য বা বিষয় ঘুরিয়ে ফিরিয়ে বার বার উপস্থাপন করা। তিনি তার জবানবন্দি ‘কুরআনে’ ঘোষণা দিয়েছেন যে, অবিশ্বাসীরা তার দাবীকে নাকচ করতেন এই অভিযোগে যে তিনি যা প্রচার করছেন তা তাদের কাছে ‘পূর্ববর্তীদের কিচ্ছা-কাহিনী ও উপকথা বৈ আর কিছু নয়।’

মুহাম্মদের ভাষায়: [1] [2]

কুরআন অনলি: (৭) মিথ্যাবাদী উন্মাদ বনাম সত্যবাদী মুহাম্মদ - প্রোপাগান্ডার স্বরূপ!


স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) তার আল্লাহর রেফারেন্সে 'কুরআনে' বহুবার নিজেই নিজের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। তিনি ঘোষণা করেছেন যে আল্লাহ তাকে জানিয়েছে যে তিনি হলেন এমন এক ব্যক্তি যিনি, 'মহান চরিত্রের অধিকারী (৬৮:৪); বিশ্বাসভাজন (৮১:২১); বিশ্ববাসীর রহমত (২১:১০৭); সমগ্র মানবজাতির সুসংবাদ দাতা (৩৩:৪৫); উজ্জ্বল প্রদীপ (৩৩:৪৬)'; ইত্যাদি, ইত্যাদি। তিনি আমাদের আরও জানিয়েছেন যে, ‘তাকে অবিশ্বাসী' তার চারিপাশের মানুষরা তাকে জানতেন এক মিথ্যাবাদী, উন্মাদ ও অস্বাভাবিক আচরণকারী (যাদুগ্রস্ত) ব্যক্তি হিসাবে।

মুহাম্মদের ভাষায়: [1] [2]

মিথ্যাবাদী মুহাম্মদ:

মৃত্যু!


আমার চলে যাবার পরে
কিছুদিন প্রিয়জনরা রাখবে মনে!
ক্রমান্বয়ে ম্লান হবে সে স্মৃতি, কিন্তু
‘নাই’ হবো না আমি কখনোই!

হারিয়ে যাবার ভয়ে ভীত নই আমি!
আমি নিশ্চিত জানি মৃত্যু হল একটি 'নাম',
প্রকৃতির বহু রূপান্তরের আর একটি।
এখানেই থাকবো আমি রূপান্তরিত রূপে,
মহাবিশ্বের মৌলিক আদি উপাদানে।
আমি তৈরি সেই উপাদানে,
প্রকৃতির স্বাভাবিক নিয়মে।

কুরআন অনলি কুইক রেফারেন্স:(৬) কুরআনে অস্পষ্টতা ও তার প্রতিকার!


সাম্প্রতিক পৃথিবীতে এমন একদল তথাকথিত মোডারেট (ইসলামে কোন কোমল, মোডারেট, উগ্রবাদী, পলিটিকাল বা শান্তিপূর্ণ জাতীয় শ্রেণী বিভাগ নেই; ইসলাম একটিই আর তা হলো মুহাম্মদের ইসলাম) ইসলাম বিশ্বাসী আছেন, যারা সম্পূর্ণ সিরাত ও হাদিস গ্রন্থকেই অগ্রহণযোগ্য বলে দাবী করেন। তারা হলেন, 'কুরআন অনলি' ইসলাম বিশ্বাসী। তারা দাবী করেন যে একমাত্র 'কুরান' ছাড়া আর কোন ইসলামী ইতিহাসই বিশ্বাসযোগ্য নয়। বিশেষ করে সিরাত ও হাদিস গ্রন্থের যে তথ্যগুলো স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর মহানুভব, নিষ্পাপ, নিষ্কলঙ্ক, শান্তিপ্রিয় ভাবমূর্তি-কে ক্ষুণ্ণ করে তার সম্পূর্ণ বিপরীত ইতিহাস উপস্থাপন করে সেগুলো তো নয়ই!

কুরআন অনলি কুইক রেফারেন্স:(৫) কুরআনের বানী সুস্পষ্ট!


ইসলামের সেই আদিকাল থেকে এখন পর্যন্ত ইসলাম বিশেষজ্ঞ মুসলমান আলেমদের যখন কুরানের কোন অস্পষ্ট বর্ণনার বিষয়ে আলোকপাত করা হয়, তখন তাদের প্রায় সকলেই যে দাবীটি উত্থাপন করে থাকেন তা হলো, "কুরআনকে সঠিকভাবে বুঝতে হলে আয়াতটির প্রেক্ষাপট (শানে নজুল ও তফসির) জানতে হবে!" আর এই একই প্রশ্নটি যদি কোন ইসলাম বিশ্বাসী অপণ্ডিতদের করা হয় তখন তাদের প্রায় সকলেই যে দাবীটি করে থাকেন তা হলো, "কোন সহি-শুদ্ধ (হক্কানি) ইসলাম বিশেষজ্ঞ মুসলিম আলেমদের সাহায্য ছাড়া কুরআন বোঝার চেষ্টা করা নিরর্থক!" অন্যদিকে, স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) তার আল্লাহর রেফারেন্সে বারংবার দাবী করেছেন যে, "কুরআনের আয়াত সুস্পষ্ট!”

কুরআন অনলি কুইক রেফারেন্স: (৪) ‘আরবি ভাষায়’ কুরআন কাদের জন্য?


আজ এই অক্টোবর ২০১৭ সালে বর্তমান পৃথিবীর প্রায় ৭৬০ কোটি জনসংখ্যার মাত্র ৪২ কোটি আরবি ভাষী, বাঁকি ৭১৮ কোটি (সাড়ে ৯৪ শতাংশ) অন্যান্য ভাষাভাষী মানুষ। মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কুরআন অবতীর্ণ হয়েছে আরবি ভাষায়, যে ভাষাটি বর্তমান পৃথিবীর মাত্র সাড়ে পাঁচ শতাংশ লোক ব্যাবহার করেন। প্রশ্ন হলো 'আরবি ভাষায়' এই কুরআন কাদের জন্যে অবতীর্ণ? এটা কি শুধু আরবি ভাষাভাষী লোকদের জন্যে অবতীর্ণ? নাকি এই ভাষায় কুরআন সর্বকালের সকল মানুষদের জন্য অবতীর্ণ? এ বিষয়ে আল্লাহর রেফারেন্সে মুহাম্মদের বানী অত্যন্ত স্পষ্ট। আর তা হলো,

মুহাম্মদের ভাষায়: [1][2]

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

গোলাপ মাহমুদ
গোলাপ মাহমুদ এর ছবি
Offline
Last seen: 15 ঘন্টা 25 min ago
Joined: রবিবার, সেপ্টেম্বর 17, 2017 - 5:04পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর